• শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৫:১৯ পূর্বাহ্ন |
  • Bangla Version
নিউজ হেডলাইন :
করোনা শনাক্তের হার ১৫ শতাংশের বেশি, মৃত্যু ১ নিম্নচাপ এগোচ্ছে বাংলাদেশের দিকে, শনিবার রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে কোপার আগে কোস্টারিকা থেকে অবসর কেইলর নাভাসের শেষ পর্যন্ত জাভিকে বরখাস্তই করল বার্সা যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হার নিয়ে সাকিব, ‘টি-টোয়েন্টিতে ছোট-বড় দল বলে কিছু নেই’ ফিফার জরিমানা নিয়ে বিবৃতিতে যা বললেন সালাম মুর্শেদী পিওলিকে বরখাস্ত করল এসি মিলান কয়েক ঘণ্টা পর মেরিল–প্রথম আলোর জমকালো আসর সবচেয়ে বাজে পরামর্শ নিয়ে মুখ খুললেন জ্যাকুলিন নতুন লুকে আনুশকা! কানে নিজের ছবির প্রিমিয়ারে থাকবেন ইরানের দণ্ডপ্রাপ্ত সেই নির্মাতা যে কারণে বিয়ে করতে চান না, জানালেন প্রভাস বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের মতবিনিময় মহাসড়ক যেন ময়লার ভাগাড় কুড়িগ্রামে মাদকসহ যুবক গ্রেফতার বিরামপুরে শ্রেণিকক্ষে যৌন হয়রানি, ইউএনও কার্যালয়ে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের

কুমিল্লায় সিঙ্গাপুর ফেরত প্রবাসীর করোনার লক্ষণ

কুমিল্লায় সিঙ্গাপুর থেকে আসা প্রবাসীর মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা দিয়েছে। এ ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে ওই যুবকসহ উপজেলাবাসী। প্রবাসী ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করতে ঢাকা থেকে রওয়ানা হয়েছে মহামারী রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) টিমের সদস্যরা। 

বুধবার (১১ মার্চ) সকালে প্রবাসী যুবক আইইডিসিআর এর নির্ধারিত নম্বরে ফোন করে তার সমস্যা জানান। আইইডিসিআর থেকে জেলা সিভিল সার্জনের কাছে ফোন আসে। জেলা থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে খবর আসার পর তৎপর হয়ে ওঠে প্রশাসন। প্রবাসী ওই যুবক চান্দিনা উপজেলার কামারখোলা গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি বলেন, ‘আমি ২০১০ সালে সিঙ্গাপুর যাই। ২০১৯ সালের মে ছুটিতে এসে বিয়ে করে আবার আগস্ট মাসে সিঙ্গাপুর চলে যাই। চলতি মাসের ৬ তারিখ আমি সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশে আসার পর বিমানবন্দরে আমাকে চেক করে একটি কার্ড দেয়। গত তিনদিন যাবত আমার জ্বর, সর্দি ও গলা ব্যথা থাকায় আমি বুধবার (১১ মার্চ) সকালে ওই কার্ডে থাকা নম্বরে ফোন করে বিষয়টি জানাই।’

চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. আহসানুল হক জানান, ওই ছেলেটির সাথে আমার কথা হয়েছে। তার যে সমস্যা তাতে ধারণা করা হচ্ছে করোনা ভাইরাসের লক্ষণ রয়েছে। তাকে ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছি। ঢাকা থেকে আইইডিসিআর টিম রওনা করেছে। ওই টিম এসে নমুনা সংগ্রহ করার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে সকাল থেকে এ ঘটনা শোনার পর এলাকায় বেশ আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। ওই প্রবাসীর বিষয়ে জানতে কামারখোলা গ্রামের একাধিক ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করলে ওই বাড়িতে কেউ যেতে রাজি হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) স্নেহাশীষ দাশ জানান, এখনই আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। যতক্ষণ না পর্যন্ত করোনাভাইরাস নিশ্চিত হয়। এছাড়া প্রবাসী যুবককে ঘরে থাকার নির্দেশ দিয়েছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.